Gizmobd

এসইও কি? বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে একজন এসইও এক্সপার্টের ক্যারিয়ার!

বর্তমান সময়ে এসইও একটি বহুল প্রচলিত অ্যাক্রনিমস। যার সম্পূর্ণ ফর্ম হলো সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন। সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন, বা এসইও কি এটা আমরা অনেকেই জানি। আবার আমরা যারা নতুন তারা হয়তো জানি না।
বস্তুতঃ এসইও হল একটি পদ্ধতি যার মাধ্যমে কোন ওয়েব পেজ কে সার্চ ইঞ্জিন এর প্রথম পাতায় নিয়ে আসা হয়। মূলত সহজ মনে করা হলেও এটি ততটা সহজ নয়, আবার খুব বেশি কঠিন নয়।

আমরা ধাপে ধাপে এসইও সম্পর্কে জানবো ও শিখবো। তবে আমার প্রথম আর্টিকেলটি এসইও এবং বাংলাদেশ একজন এসইও’র ক্যারিয়ার নিয়ে। পরবর্তীতে এসইও সম্পর্কে ধারাবাহিক আর্টিকেল লেখা হবে এই ব্লগে।

এসইও কি?


আমরা অনেকেই জানি এসইও হলো সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন।(SEO) আর, একটু সহজ করে “এসইও কি” এটা নিয়ে বলে চাইলে,
সার্চ ইঞ্জিন হলো সেসব ইঞ্জিন যেগুলোর মাধ্যমে আমরা কোন কিছু খুঁজে থাকি। বর্তমান সময়ে অনেকগুলো জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন রয়েছে। তবে, বলা বাহুল্য গুগল তাদের মধ্যে সবচেয়ে সেরা এবং মোট সার্চের ৭০ থেকে ৭৫ ভাগ দখল করে আছে।

অপটিমাইজেশন কিঃ অপটিমাইজেশন শব্দের অর্থ হলো, কোন পরিস্থিতি বা রিসোর্সের সর্বোত্তম অথবা কার্যকর ব্যবহার করার কর্ম পদ্ধতি। সুতরাং সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন হলো কোনো রিসোর্স কে সর্বোত্তম ব্যবহার করে সার্চ ইঞ্জিনগুলতে রাঙ্ক (সবচেয়ে বেশি মানুষের কাছে পৌছানো) করার পদ্ধতি।

এসইও এক্সপার্ট

মূলত ফ্রিতে সার্চ ইঞ্জিন থেকে ট্রাফিক লিড জেনারেশন করা করা হলো একজন এক্সপার্ট এর কাজ।
অন্যভাবে বলতে, ধরুন আপনি আপনার লেখা কোন একটি আর্টিকেল অনলাইনে পাবলিশ করেছেন। এখন এই লেখাটি গুগোল এর প্রথম পৃষ্ঠাতে আনার পিছনের কর্মকান্ড গুলোই হচ্ছে একজন এসইওর কাজ।

বাংলাদেশ এসইও এক্সপার্টেদের ক্যারিয়ার

Image by mohamed Hassan from Pixabay

বাংলাদেশের এসইও এক্সপার্টে এর সম্ভাবনা বিস্তর। অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে স্বল্পমূল্যে সার্ভিস দেওয়া দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। ক্যারিয়ার হিসেবে একজন এসেছিল তার দৃষ্টি ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলোর দিকে রাখেন। অধিকিন্তু, দেশের অভ্যন্তরে দক্ষ এসইওর প্রচুর চাহিদা রয়েছে।

ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস

ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস গুলোতে এই কাজের অনেক চাহিদা রয়েছে। তবে, আপওয়ার্ক এর মত বড় বড় মার্কেটপ্লেসগুলোতে বর্তমান সময়ে এসইও এক্সপার্ট হিসেবে রেজিস্ট্রেশন করে, এপ্রুভ পাওয়া খুব কষ্টসাধ্য। তবে ফাইবার বা অন্যান্য মার্কেটপ্লেসগুলোতে খুব সহজেই আপনি কাজ শুরু করতে দিতে পারেন।

কিন্তু,বলা বাহুল্য মার্কেটপ্লেসগুলোতে কাজ করতে হলে আপনাকে এ সম্পর্কে সম্পূর্ণ ধারণা রাখতে হবে বা একটি বিষয়ে ভালোভাবে দক্ষতা অর্জন করতে হবে।

আপনি যদি প্রাথমিক পর্যায়ে কোন মার্কেটপ্লেসে কাজ খোঁজেন বা করার চেষ্টা করেন, তাহলে অবশ্যই কোন একটা বিষয়ে পারদর্শী হতে হবে যেমন: অনপেজ এক্সপার্ট বা অফপেজ এক্সপার্ট হতে হবে। আবার আপনি চাইলে ছোট একটি নিচে কাজ করতে পারেন, যেমন: আমি গেস্ট পোস্ট সার্ভিস নিয়ে কাজ করে থাকি। ফ্রীল্যান্স এর এক্সপার্টদের মাসিক আয় নির্ভর করে কি পরিমাণ কাজ ও সময় ব্যয় করা হয়েছে।

লোকাল বিজনেস

Image by Gerd Altmann from Pixabay

লোকাল বিজনেস বা সার্ভিস সাইটগুলোতে এসইওর এর প্রয়োজনীয়তা বলে শেষ করা যাবে না। তবে বর্তমান সময়ে সকল প্রতিষ্ঠান এসইও বা ডিজিটাল মার্কেটিং ততটা গুরুত্ব দিচ্ছে না।

তাই বলে যারা দিচ্ছে তাদের সংখ্যাও কম নয়। সুতরাং আপনি চাইলে যেকোনো লোকাল অফিসে ডিজিটাল মার্কেটার হিসেবে কাজ করতে পারেন।

লোকাল বিজনেস সাইটগুলোতে বেতন কাঠামো সাধারণতো ৬০০০ টাকা থেকে শুরু করে ৫০০০০ টাকার মধ্যে হয়। তবে আপনি যদি আপনার দক্ষতা প্রমাণ করতে পারেন তবে এক থেকে দেড় লাখ টাকা বেতনে চাকরিও করতে পারেন।

লোকাল ই-কমার্স

লোকাল সাইটগুলোতে অর্গানিক সেল বৃদ্ধিতে একজন এক্সপার্ট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। পেইড মার্কেটিং যেমন: গুগোল অ্যাড, ফেসবুক কিংবা ইনস্টাগ্রাম অ্যাড দিয়ে পণ্য বিপণন করা গেলেও বাংলাদেশের জনপ্রিয়। তবে বড় এবং যারা লংটাইম সাসটেইন করতে চান তাদের অর্গানিক বিক্রি বৃদ্ধিতে এসইও এক্সপার্ট প্রয়োজন।

ই-কমার্স এসইও কিছুটা ভিন্ন ধাঁচের, এখানে অনপেজ এসইও এর গুরুত্ব বেশি। তার পরে ব্র্যান্ডিং ও কোম্পানি সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধিতে ও আপনাকে পারদর্শী হতে হবে।

ই-কমার্স সাইট গুলোতে বেতন ভিত্তিতে বা সেলের কমিশন ভিত্তিতে কাজ করানো হয়ে থাকে, সে ক্ষেত্রে আপনি মাসে ৬০০০ টাকা থেকে শুরু করে ৩০-৪০ হাজার টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারেন।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং

 

Image by Tumisu from Pixabay

বাংলাদেশের প্রশিদ্ধ এসইও এক্সপার্টদের বড় একটি অংশ অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে থাকেন।
মূলত প্যাসিভ ইনকাম এর জন্য অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং খুবই ভালো যেখানে কোন কোন পণ্যের সম্পর্কে আর্টিকেল বা ভিডিও তৈরি করে সেল করা হয়।
বড় ই-কমার্স সাইট যেমন অ্যামাজন, আলীএক্সপ্রেস তাদের বিভিন্ন পণ্যের দাম এর উপরে ২.৫ থেকে ১০ শতাংশ পর্যন্ত কমিশন দিয়ে থাকে।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের ইনকাম অনেকটা নির্ভর করে ইনভেস্টমেন্ট এবং দক্ষতার উপরে। এসইও ও ওয়েবসাইট ম্যানেজমেন্ট সম্পর্কে ভালো করে না জেনে এই ক্যারিয়ার চয়ন বুদ্ধিমানের কাজ না।

বাংলাদেশের টপ এক্সপার্টরা অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে মাসে লাখ ডলারের উপর ইনকাম করেন। তবে সাধারণত মাসে ২০০ থেকে ৩০০ ডলার আশা করা যেতে পারে একটি এফিলিয়েট সাইট থেকে।

অ্যাডসেন্স ও অন্যান্য অ্যাড নেটওয়ার্ক

অ্যাডসেন্স বলতে আমরা গুগল অ্যাডসেন্স কি বুঝে থাকি। তবে গুগল ছাড়াও আরও অনেক অ্যাড নেটওয়ার্ক আছে যারা কোনো ওয়েবসাইটে অ্যাড দিয়ে থাকে।
আর্নিং এর দিক থেকে অ্যাডসেন্স , এফিলিয়েট মার্কেটিং এর থেকে কম ফলপ্রসূ কিন্তু অ্যাডসেন্স ভিত্তিক সাইট তৈরিতে কম খরচ লাগে।

আবার আপনি চাইলে একই ওয়েবসাইটে অ্যাডসেন্স এবং অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং দুটোই করতে পারবেন। তবে সে ক্ষেত্রে আপনাকে সেভাবেই আপনার কনটেন্ট প্ল্যান করতে হবে।

এসইও এক্সপার্ট হিসেবে নিজেকে কিভাবে গড়ে তুলবেন?

 

Image by yogesh more from Pixabay

এসইও সম্পর্কে ইউটিউব এবং ব্লগে অনেক রিসোর্স পাবেন সেগুলো থেকে আপনার হাতে খড়ি হতে পারে।
বিভিন্ন আইটি প্রতিষ্ঠানগুলো ট্রেনিং দিয়ে থাকে ডিজিটাল মার্কেটিং এবং এসইও এর উপর তবে এ ক্ষেত্রে সাবধানতা অবলম্বন করায় উচিত। ভাল প্রতিষ্ঠান বা দক্ষ এসইওর থেকে কোর্স করলে আপনার পুরো টাকা জলে যাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

আর আপনি যদি এসইও সম্পর্কে বা অনলাইন সম্পর্কে সামান্য ধারণা না থাকে, তাহলে আপনার জন্য কোন এসইও কোর্স কাজে দিবে না।

সে ক্ষেত্রে আমার সাজেশন হলো আপনি ইউটিউব থেকে বা বিভিন্ন বিদেশি ইংলিশ ব্লগ পড়ে এসইও সম্পর্কে ধারণা নিন। তারপর আপনি কোন প্রতিষ্ঠান থেকে এসইও বা এফিলিয়েট মার্কেটিং এর উপর একটি কোর্স করে ফেলুন।
অতঃপর প্র্যাকটিস করুন অথবা ইন্টার্ন হিসেবে স্বল্প টাকায় কোথাও জয়েন করে নিজের ক্যারিয়ারকে এবং জানা তথ্যগুলোকে ঝালাই করে নিন।
এরপর আপনার জন্য ফ্রিল্যান্সিং অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং বা অ্যাডসেন্স ব্লগ করা খুব সহজ হয়ে যাবে। স্বল্প জ্ঞান সর্বদাই ভয়ঙ্কর, সুতরাং প্র্যাকটিস এর কোনো বিকল্প নেই।

শেষে কথা

আমার লেখা আপনার কেমন লাগলো তা কমেন্ট করে জানাবেন এবং এসইও নিয়ে আপনার জানার কিছু থাকলে নিচে প্রশ্ন করতেও পারেন। পরবর্তীতে আপনাদের মাঝে এসইও নিয়ে ধারাবাহিক আর্টিকেল লেখার চেষ্টা করব ততদিন পর্যন্ত ভালো থাকবেন। ধন্যবাদ

Future Image by kalhh from Pixabay

Lutfor Rahman

Hello, I am Lutfor Rahman, Digital Marketing & SEO expert. SEO (Search Engine Optimization) is an online tool that I use for my affiliate website and clients to gain more traffic to their business or brands website. With directing more people to your site, conversions from site viewers to customers is exactly what Ruan specializes in. Being able to build an audience using SEO for your brand or business will help your growth/reputation.

3 comments

*

code

  • সুন্দর আর্টিকেল ভাইয়া, পড়ে বেশ ভালই লাগলো! আশাকরি এসইও রিলেটেড আরো আর্টিকেল আপনার কাছ থেকে উপহার পাবো।

Your Header Sidebar area is currently empty. Hurry up and add some widgets.